Khulna
July 21st, 2018
Politics / রাজনীতি
চুয়াডাঙ্গায় রেলওয়ের জমিতে ছাত্রলীগ যুবলীগের নেতার মার্কেট!
October 1st, 20104,325 views

চুয়াডাঙ্গার জয়রামপুর রেলস্টেশনের কোয়ার্টার ভবনের ইট খুলে রেলের জমিতেই তৈরি হচ্ছে মার্কেট। প্রকাশ্যে এই দখলবাজি চললেও কেউই প্রতিবাদ করার সাহস পাচ্ছে না। অভিযোগ উঠেছে জেলা ছাত্রলীগ ও স্থানীয় যুবলীগ নেতারা এই দখলবাজির সঙ্গে জড়িত। চুয়াডাঙ্গা রেলওয়ে এ ব্যাপারে থানায় মামলা করেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, স্টেশনটি বছর দুয়েক আগে বন্ধ করে দেয় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। বর্তমানে এখানে রেলওয়ের কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারী থাকেন না। এই সুযোগে স্টেশন ভবনের অনেক মূল্যবান সামগ্রী চুরি হয়ে গেছে। স্টেশন কোয়ার্টারের পুরাতন ভবন ভেঙে সেই ইট দিয়েই রেলের জমিতে পুরোদমে চলছে মার্কেট তৈরির কাজ। ইতিমধ্যেই মার্কেটের ১৪টি দোকানের জন্য দেয়াল গাঁথার কাজ প্রায় শেষ হয়ে গেছে।

এলাকাবাসির অভিযোগ, জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি জাহিদুল ইসলাম ও দামুড়হুদা থানা যুবলীগের সদস্য স্বপন রয়েছেন দখলবাজির নেপথ্যে। ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি দোকানের পজিশনও বিক্রি করা হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা রেলওয়ের সহকারি নির্বাহী প্রকৌশলী সামিরুল ইসলাম জানান, 'জয়রামপুর স্টেশনে রেলওয়ের জমিতে অবৈধভাবে মার্কেট তৈরির ব্যাপারে দামুড়হুদা থানায় জাহিদুল ও স্বপন নামের দুজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তাঁর অভিযোগ, পুলিশ এ ব্যাপারে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। বরং প্রকাশ্যে জাহিদুল ও স্বপন মার্কেট তৈরির কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।' এছাড়া জয়রামপুর রেলস্টেশন ভবনে চুরি ও মার্কেট তৈরির বিষয়টি পাকসির রেলওয়ের ভূমি বিভাগকে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে দামুড়হুদা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শিকদার মশিউর রহমান জানান, 'চুয়াডাঙ্গা রেলওয়ের পক্ষে অভিযোগ দায়েরের পর তা এজাহার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। রেলওয়ের পক্ষে এজাহার করা হয়েছিল দু'জনের নামে। কিন্তু পুলিশ জানতে পেরেছে, এর সঙ্গে আরো অনেকে জড়িত। অভিযোগপত্রে তাদের নাম আসবে।'

ছাত্রলীগ নেতা জাহিদুল জানান, 'কুষ্টিয়ার আবু বক্কর সিদ্দিকী রেলের এই জমি ইজারা নিয়েছিলেন। তিনি মারা গেছেন। তার ওয়ারিশদের অনুমতি নিয়ে এখানে রেলের ১৪ জন শ্রমিকের জন্য ১৪টি দোকানঘর নির্মাণ করা হচ্ছে। তবে তিনি ইজারা সংক্রান্ত কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেননি।